দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করে ক্লান্ত? যত্রতত্র বসতে চাইলে কোমরে পরে নিন এই বিশেষ চেয়ার

ফেসবুকে শেয়ার করুন টুইট শেয়ার রেডিট কমেন্ট
দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করে ক্লান্ত? যত্রতত্র বসতে চাইলে কোমরে পরে নিন এই বিশেষ চেয়ার

যেখানে ইচ্ছা এই চেয়ার খুলে বসে পড়ুন, কাজ মিটে গেলে আবার গুটিয়ে নিন

ঠিক সাড়ে ৯ টায় গড়িয়াহাটের মোড়ে বন্ধুর আসার কথা? আপনি সময়ে চলে এলেও আপনার বন্ধুবরের আসতে আরও ঘণ্টাখানেক? দাঁড়িয়ে রইতে রইতে পা থেকে কোমর একেবারে ব্যথায় অস্থির? ভারতীয় রেল সময়সূচিকে নাকানিচোবানি খাইয়ে প্রায় দেড় ঘণ্টা বাদে ট্রেন ছাড়ছে? স্টেশনে বসার জায়গা নেই? একটা ফাঁকা চেয়ার বা, বসার জায়গা কিস্যুও চোখে পড়ছে না অথচ দাঁড়িয়ে থেকে থেকে অবস্থা শোচনীয়? কুছ পরোয়া নেই আর! এই বিরক্তিকর অপেক্ষা আর পায়ে কোমরে ব্যথার থেকে মুক্তি দিতে এসে গেল চেয়ার! না না, এ ঠিক যেমন তেমন চেয়ার নয়, দো পেয়ে এক মুশকিল আসান চেয়ার। পোশাকি নাম ‘দ্য লেক্স'। জামা কাপড় পরার মতোই এই চেয়ারও আসলে শরীরে পরে নিতে হয়। আর চাইলেই খুলে নিয়ে যেখানে খুশি সেখানেই বসে পড়তে পারেন।

স্মার্টফোনে স্টোরেজ কমে আসছে? এই টোটকায় মিলবে সমাধান

chair

 বেল্ট কষে আটকে নিন, আর যেখানে ইচ্ছা খুলে নিয়ে বসে পড়ুন

টেক ইনসাইডার টুইটারে সম্প্রতি একটি ভিডিও পোস্ট করেছে। ওই ভিডিও থেকেই জানা গিয়েছে বিশেষভাবে নির্মিত এই চেয়ারের কথা। ১৮ সেপ্টেম্বর যে ভিডিওটি পোস্ট করেছে টেক ইনসাইডার সেখানে দেখা যাচ্ছে, অন্য চেয়ারে চার পা রইলেও এই বিশেষ লেক্স কিন্তু দু'পেয়ে। বেল্ট দিয়ে এই চেয়ার নিজের পশ্চাৎ অংশের সঙ্গে সেঁটে নিলেই কেল্লা ফতে। বেল্ট কষে আটকে নিন, আর যেখানে ইচ্ছা খুলে নিয়ে বসে পড়ুন, কাজ মিটে গেলে আবার গুটিয়ে নিন। এই চেয়ার এমন ভাবেই তৈরি যা আমাদের কোমর ও পায়ের সংযোগ স্থলে বিশেষ আরামও দেয়।

ক্রমশ কমে যাচ্ছে স্মার্টফোনের ব্যাকআপ? সমাধানের উপায়গুলি দেখে নিন

‘লেক্স' নামের এই বিশেষ চেয়ার তৈরি হয়েছে এরোস্পেস অ্যালুমিনিয়াম দিয়ে। ফলে কার্যত কোনও ওজন নেই এই চেয়ারের। তবে ওজন না থাকলেও এর মজবুতি নিয়ে কোনও সংশয় নেই। চেয়ারের দুই পায়ে ১২০ কেজি পর্যন্ত ভার দেওয়া সম্ভব। বেল্ট আটকে পরে নেওয়ার পর পিছনে একটি বাড়তি পাতের মতো আটকে থাকে। চাইলে ওই পাতটিকে এমন করে ঘুরিয়ে রাখতে পারেন যাতে সামনে থেকে বোঝাই না যায়।

হাঙরের আক্রমণের থেকে পাঁচ গুণ মারাত্মক সেলফি, কেন?

এই দু'পেয়ে চেয়ারের প্রস্তুতকারকদের দাবি, বেড়াতে যাওয়া বা কাজে যাওয়ার ক্ষেত্রে অপেক্ষা আর বসতে না পারার যন্ত্রণা থেকে মুক্তির পথ খুঁজে দেবে এই চেয়ার। এই পুজোয় প্যান্ডেলে লাইন দিতে এই চেয়ার কিনবেন নাকি একটা?

কমেন্ট

প্রযুক্তির সাম্প্রতিক খবর আর রিভিউস জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube.

 
 

বিজ্ঞাপন

 
© Copyright Red Pixels Ventures Limited 2019. All rights reserved.