চিনে তথ্য পাঠানো হয় না, থারুরের অভিযোগ নস্যাৎ করে দিয়ে জানাল TikTok

ফেসবুকে শেয়ার করুন টুইট শেয়ার রেডিট কমেন্ট
চিনে তথ্য পাঠানো হয় না, থারুরের অভিযোগ নস্যাৎ করে দিয়ে জানাল TikTok

সম্প্রতি জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং অ্যাপ TikTok এর বিরুদ্ধে চিনে তথ্য পাচারের অভিযোগ এনেছিলেন সাংসদ শশী থারুর। মঙ্গলবার সেই অবিযোগ অস্বীকার বকরেছে চিনের কোম্পানিটি।

সোমবার লোকসভায় থারুর বলেন, একাধিক রিপোর্টে জানানো হয়েছে চিন সরকারের কাছে তথ্য পাচার করে TikTok। সেই দেশের রাষ্ট্রায়াত্ব কোম্পানি China Telecom এর মাধ্যমে এই কাজ করে TikTok।

“সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে শিশুদের ব্যক্তিগত তথ্য বেআইনিভাবে সংগ্রহ করার জন্য 5.7 মিলিয়ান মার্কিন ডলার জরিমানা হয়েছে TikTok এর।”

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে TikTok জানিয়েছে, “এই অভিযোগ সম্পূর্ণ অসত্য। গ্রাহকের সুরক্ষা আমাদের কাছে সবার আগে। যে সব দেশে আমরা ব্যবসা করি সব দেশের স্থানীয় আইন মেনে চলি আমরা।”

TikTok জানিয়েছে চিন সরকারের কাছে কোম্পানির গ্রাহকের ব্যক্তিগত তথ্য ব্যবহারের কোন উপায় নেই। এমনকি China Telecom এর সাথেও TikTok  এর কোন সম্পর্ক নেই বলে জানানো হয়েছে।

“ভারতের গ্রাহকদের তথ্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও সিঙ্গাপুরের সেরা কিছু ডেটা সেন্টারে রাখা হয়।” বলে জানিয়েছে TikTok এর প্রধান কোম্পানি বেজিং এর ByteDance।

কমেন্ট

প্রযুক্তির সাম্প্রতিক খবর আর রিভিউস জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube.

পড়ুন: English
 
 

বিজ্ঞাপন

 
© Copyright Red Pixels Ventures Limited 2019. All rights reserved.