Lunar Eclipse 2020 Today: বছরের প্রথম চন্দ্রগ্রহণ সম্পর্কে পাঁচটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

ফেসবুকে শেয়ার করুন টুইট শেয়ার Snapchat রেডিট কমেন্ট
Lunar Eclipse 2020 Today: বছরের প্রথম চন্দ্রগ্রহণ সম্পর্কে পাঁচটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য

Lunar eclipse 2020: ভারতের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে শুক্রবারের চন্দ্রগ্রহোন দেখা যাবে

হাইলাইট
  • শুক্রবার নতুন বছরের প্রথম চন্দ্রগ্রহণ দেখা যাবে
  • এই দিন ‘উলফ মুন’ নামে জনপ্রিয়
  • খালি চোখে চন্দ্রগ্রহণ দেখা যাবে

Chandra grahan 2020: নতুন বছরের শুরুতেই এক মহাজাগতিক ঘটনা, 10 জানুয়ারি বছরের প্রথম চন্দ্রগ্রহণের সাক্ষী থাকবে দেশবাসী। ভারত ছাড়াও এশিয়া, ইউরো, আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়ার বেশিরভাগ অঞ্চল থেকে শুক্রবারের চন্দ্রগ্রহণ দেখা যাবে। যদিও উত্তর ও দক্ষিণ আমেরিকা থেকে এই গ্রহণ দেখা যাবে না। শুক্রবারের উপচ্ছায়া চন্দ্রগ্রহণের সাক্ষী থাকবেন বিশ্ববাসী। বছরের প্রথম পূর্ণিমা হওয়ার কারণে আজকের দিন পশ্চিম দুনিয়ায় ‘উলফ মুন' নামে জনপ্রিয়। শুক্রবার রাতের চন্দ্রগ্রহণ সম্পর্কে পাঁচটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দেখে নিন।

কেন ‘উলফ মুন' বলা হয়? জানাল নাসা

নাসার গর্ডন জন্সটন জানিয়েছেন 1930 এর দশক থেকে এই ঘটনাকে ‘উলফ মুন' বলা হয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উত্তর-পূর্ব দিকের মাইন রাজ্যের কৃষকদের বর্ষপঞ্জিতে এই ঘটনাকে ‘উলফ মুন' বলে উদ্ধৃত করা হয়েছে। অ্যানগনকুইন উপজাতির বর্ষপঞ্জিতে শীতের প্রথম পূর্ণিমা অর্থাৎ জানুয়ারি মাসের পূর্ণিমাকে ‘উলফ মুন' বলা হয়। প্রবল শীতে এই রাতে গ্রামের পাশে জঙ্গল থেকে নেকড়ের ডাক শোনা যায়। হিন্দু মতে এই দিনটি শাকম্ভরী পূর্ণিমা পালন করা হয়। শ্রীলঙ্কার বৌদ্ধরা এই দিনে দুরুথু পোয়া পালন করেন। এই দিনেই গৌতম বৌদ্ধ প্রথম শ্রীলঙ্কায় পা রেখেছিলেন।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে চন্দ্রগ্রহণ দেখা যাবে না

নাসা জানিয়েছে শুক্রবারের চন্দ্রগ্রহণে চার ঘণ্টার বেশি সময় পৃথিবীর ছায়া চন্দ্রপৃষ্ঠে পড়বে। এশিয়া, ইউরোপ, আফ্রিকা ও অস্ট্রেলিয়ার বেশিরভাগ অঞ্চল থেকেই এই গ্রহণ দেখা যাবে। যদিও উত্তর ও দক্ষিণ আমেরিকা থেকে শুক্রবারের চন্দ্রগ্রহণ দেখা যাবে না।

কোথায়, কখন দেখা যাবে?

ভারত সহ পূর্ব গোলার্ধের প্রায় সব স্থান থেকেই শুক্রবারের চন্দ্রগ্রহণ দেখা যাবে। এশিয়া, আফ্রিকা, ইউরোপ ও অস্ট্রেলিয়ার বেশিরভাগ অঞ্চলের মানুষ শুক্রবারের চন্দ্রগ্রহণের সাক্ষী থাকবেন। শুক্রবার ভারতীয় সময় রাত 10টা 37মিনিটে চন্দ্রগ্রহণ শুরু হবে। 11 জানুয়ারি রাত 2টো 42মিনিট পর্যন্ত এই চন্দ্রগ্রহণ চলবে।  অনলাইনে শুক্রবারের চন্দ্রগ্রহণ দেখতে নীচের প্লে বাটনে ক্লিক করুন।

সুরক্ষিত থাকতে কী করবেন?

বিশেষ চশমার মাধ্যমে সূর্যগ্রহণ দেখা বাধ্যতামূলক হলেও খালি চোখে চন্দ্রগ্রহণ দেখা যায়। তাই চন্দ্রগ্রহণ দেখতে কোন বিশেষ চশমার প্রয়োজন হবে না। হাতের কাছে টেলিস্কোপ থাকলে টেলিস্কোপের মাধ্যমে চন্দ্রগ্রহণ দেখতে পারেন।

দিনের দৈর্ঘ্য বাড়বে

নাসা জানিয়েছে বছরের প্রথম চন্দ্রগ্রহণের পরে উত্তর গোলার্ধে দিনের দৈর্ঘ্য বাড়বে। মার্কিন গবেষণা সংস্থা জানিয়েছে ওয়াশিংটন ডিসি শহরে 9 ঘণ্টা 38 মিনিট সময় পূর্ণিমা থাকবে। পরের পূর্ণিমার সময় 53 মিনিট বেড়ে 10 ঘণ্টা 51 মিনিট হবে। “পূর্ণিমার সন্ধ্যায় সূর্যাস্তের পরে আকাশে শুক্রগ্রহকে সবথেকে উজ্জ্বল দেখাবে। দক্ষিণ-পশ্চিম আকাশে দিগন্ত থেকে 19 ডিগ্রি উপরে শুক্রগ্রহ দেখা যাবে। ক্যাপেল্লা শুক্রবারের আকাশের সবথেকে উজ্জ্বল নক্ষত্র হতে চলেছে। উত্তর-পূর্ব আকাশে দিগন্ত থেকে 46 ডিগ্রি উপরে এই নক্ষত্র দেখা যাবে।” জানিয়েছেন জন্সটন।

কমেন্ট

প্রযুক্তির সাম্প্রতিক খবর আর রিভিউস জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube.

পড়ুন: English
 
 

বিজ্ঞাপন

 
© Copyright Red Pixels Ventures Limited 2020. All rights reserved.