বিস্ফোরণের পর সোশ্যাল মিডিয়া নিষিদ্ধ হল শ্রীলঙ্কায়

ফেসবুকে শেয়ার করুন টুইট শেয়ার রেডিট কমেন্ট
বিস্ফোরণের পর সোশ্যাল মিডিয়া নিষিদ্ধ হল শ্রীলঙ্কায়

Photo Credit: Reuters / Fayaz Aziz

শ্রীলঙ্কায় সাময়িকভাবে সব ধরনের সোশ্যাল মিডিয়া নিষিদ্ধ করা হয়েছে

হাইলাইট
  • শ্রীলঙ্কায় সোশ্যাল মিডিয়া নিষিদ্ধ হয়েছে
  • ভুয়ো খবর প্রচার রুখে শান্তি বজায় রাখতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে
  • Facebook, YouTube, WhatsApp, Instagram, Snapchat,Viber ব্যবহার বন্ধ হয়েছে

রবিবার সকালে একের পর এক বিস্ফোরণে কেঁপে উঠেছিল শ্রীলঙ্কা। এই বিস্ফোরণে দ্বীপ রাষ্ট্রে 200 জনের বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন। এর পর গোটা দেশে সাময়িকভাবে সব ধরনের সোশ্যাল মিডিয়া নিষিদ্ধ করা হয়েছে। বিস্ফোরণের পরে ভুয়ো খবর প্রচার রুখে শান্তি বজায় রাখতে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ইতিমধ্যেই শ্রীলঙ্কায় নিষিদ্ধ হয়েছে Facebook, YouTube, WhatsApp, Instagram, Snapchat, Viber সহ সব ধরনের সোশ্যাল মিডিয়া।

গোটা দেশে একাধিক গীর্জা, বিলাশবহুল হোটেল ও অন্যান্য জায়গার বিস্ফোরণের তদন্ত শুরু করেছে সরকার। এই তদন্ত শেষ হলেই দেশে সোশ্যাল মিডিয়া নিষেধাজ্ঞা তোলা হবে বলে জানিয়েছে সেই দেশের প্রতিরক্ষা দপ্তর।

গত কয়েক বছর ধরে Facebook, WhatsApp এর মতো প্ল্যাটফর্মগুলি ভুয়ো খবর মোকাবিলায় বিশেষ ভুমিকা নিতে পারেনি। এই প্ল্যাটফর্মগুলি ব্যবহার করে ভারত, মায়ানমার, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সহ একাধিক দেশে একের পর এক ভুয়ো খবর প্রচার করে হিংসা ছড়িয়েছে দুষ্কৃতীরা। Facebook জানিয়েছে শিঘ্রই শ্রীলঙ্কা সরকারের সাথে হাত মিলিয়ে সব ধরনের ভুয়ো খবর নিজেরদের প্ল্যাটফর্ম থেকে ডিলিট করে দেওয়া হবে।

Facebook জানিয়েছে, “দেশের সরকারের সোশ্যাল মিডিয়া নিষিদ্ধ করা সিদ্ধান্ত সম্পর্কে আমরা ওয়াকিবহাল। আমাদের সার্ভিসের উপরে নির্ভর করে শ্রীলঙ্কার মানুষ নিজের প্রিয়জনের সাথে যুক্ত থাকেন। দেশের এই খারাপ সময়ে আমরা শ্রীলঙ্কার নাগরিকদের পাশে রয়েছি।”

শ্রীলঙ্কায় Google এর সার্ভিস YouTube নিষিদ্ধ হলেও এখনও এই বিষয়ে কোন মন্তব্য করেনি সার্চ ইঞ্জিন জায়েন্ট।

কমেন্ট

প্রযুক্তির সাম্প্রতিক খবর আর রিভিউস জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube.

পড়ুন: English
 
 

বিজ্ঞাপন

 
© Copyright Red Pixels Ventures Limited 2019. All rights reserved.