কোয়ান্টাম কম্পিউটিংয়ে বিপ্লব! হাজার বছরের গণনা মুহূর্তে করছে Google

ফেসবুকে শেয়ার করুন টুইট শেয়ার রেডিট কমেন্ট
কোয়ান্টাম কম্পিউটিংয়ে বিপ্লব! হাজার বছরের গণনা মুহূর্তে করছে Google

Photo Credit: Erik Lucero, Research Scientist and Lead Production Quantum Hardware

4 কিউবিটের Sycamore প্রসেসর ব্যবহার করে একটি গণনা 200 সেকেন্ডে শেষ করেছে Google

হাইলাইট
  • কোয়ান্টাম কম্পিউটিং গবেষণায় অভূতপূর্ব সাফল্য এল
  • কয়েক হাজার বছরের গণনা কয়েক মিনিটে করেছে নতুন প্রসেসর
  • এই প্রযুক্তি সামনে আসতে প্রায় এক দশক সময় লাগবে

কোয়ান্টাম কম্পিউটিং গবেষণায় অভূতপূর্ব সাফল্য এল। সম্প্রতি পরীক্ষামুলকভাবে একটি কোয়ান্টাম কম্পিউটার প্রসেসরে পরীক্ষা চালিয়েছে Google। নতুন এই প্রসেসর মুহূর্তে যে গণনা করেছে সবথেকে শক্তিশালী সুপার কম্পিউটারের একই গণনা করতে কয়েক হাজার বছর সময় লাগবে। বুধবার Nature জার্নালে এই তথ্য সামনে এসেছে।

কোয়ান্টাম কম্পিউটিংয়ের মাধ্যমে জলদি প্রসেসিং স্পিড অনেকটা বাড়িয়ে নেওয়া সম্ভব। এখন যে সব গণনা করতে কয়েক বছর সময় লাগে ভবিষ্যতে মুহূর্তে সেই গণনা করতে পারে কোয়ান্টাম কম্পিউটার।

কোয়ান্টাম বিটস বা কিউবিটসের মাধ্যমে কোয়ান্টাম কম্পিউটিং হয়। একটি কিউবিট একই সময়ে 0 এবং 1 হতে পারে। ফলে কম্পিউটিংয়ের গতি এক ধক্কায় কয়েক হাজার গুণ বেড়ে যেতে পারে। Google, Microsoft, IBM, Intel এর মতো তাবড় টেক কোম্পানিগুলি কোয়ান্টাম কম্পিউটিং রিসার্চে এগিয়ে রয়েছে।

সম্প্রতি The Verge এ প্রকাশিত রিপোর্টে জানানো হয়েছে, 54 কিউবিটের Sycamore নামের একটি প্রসেসর ব্যবহার করে একটি গণনা 200 সেকেন্ডে শেষ করেছে Google। এই মুহূর্তে বিশ্বের সবথেকে শক্তিশালী কম্পিউটারে একই গণনা করতে 10,000 বছরের বেশি সময় লাগবে।

কিন্তু IMB জানিয়েছে Google আজকের সুপারকম্পিউটারকে ছোট করছে। আসবে 2.5  দিনে একই কাজ করতে পারবে এই মুহূর্তে বিশ্বের সবথেকে শক্তিশালী কম্পিউটার। IMB এর এই মন্তব্যের কোন উত্তর দেয়নি Google।

কমেন্ট

প্রযুক্তির সাম্প্রতিক খবর আর রিভিউস জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube.

 
 

বিজ্ঞাপন

 
© Copyright Red Pixels Ventures Limited 2019. All rights reserved.