Aadhaar Software Hacked: দরকারি নথি ছাড়াই তৈরী হচ্ছে আধার, প্রকাশ্যে এল জাল সফটওয়্যার

ফেসবুকে শেয়ার করুন টুইট শেয়ার শেয়ার রেডিট কমেন্ট
Aadhaar Software Hacked: দরকারি নথি ছাড়াই তৈরী হচ্ছে আধার, প্রকাশ্যে এল জাল সফটওয়্যার

Photo Credit: Facebook/ UIDAI

News of the Aadhaar patch comes just ahead the launch of face recognition facility

হাইলাইট

  • একটি সফটওয়্যার প্যাচ আধারের থাকা তথ্যের সুরক্ষার সাথে আপস করছে
  • মাত্র 2,500 টাকার বিনিময়ে প্যাচ কেনা যাচ্ছে
  • সারা বিশ্বের যে কোন জায়গায় বসে এই কাজ করতে পারবেন হ্যাকাররা

আবার খবরের শিরোনামে আধারের সুরক্ষা। একটি সফটওয়্যার প্যাচ আধারের থাকা তথ্যের সুরক্ষার সাথে আপস করছে বলে তিন মাস ধরে চলা এক তদন্তে জানা গিয়েছে। এই সফওয়্যার প্যাচ UIDAI তৈরী করেনি। এই প্যাচের মাধ্যমে হ্যাকাররা আধার সুরক্ষাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে সহজেই ভুয়ো আধার নম্বর তৈরী করতে পারছেন। মাত্র 2,500 টাকার বিনিময়ে প্যাচ কেনা যাচ্ছে। ইতিমধ্যেই সারা দেশে রমরমিয়ে শুরু হয়েছে এই ব্যবসা। শিঘ্রই আধারে যোগ হতে চলেছে ফেস রেকগনিশান। ফিঙ্গারপ্রিন্ট ও আইরিস স্ক্যানারের সাথেই এবার থেকে ফেস রিকগনিশান যোগ হবে আধারে। তার ঠিক আগেই আধারে সুরক্ষা নিয়ে আবার বড় প্রশ্ন উঠে গেল।

ইতিমধ্যেই এই প্যাচ হাতে পেয়েছে HuffPost। একাধিক সুরক্ষা বিশেষজ্ঞ জানিয়েছেন এই প্যাচ আধারের সুরক্ষাকে অতিক্রম করতে পেরেছে। এই প্যাচের মাধ্যমে আধার বায়োমেট্রিক অথেন্টিকেশান বাইপাস করা সম্ভব। এনরোলমেন্ট সেন্টারের এই কাজ করার সময় GPS বন্ধ করে কাজ করতে সক্ষম এই প্যাচ। এর ফলে কোন এনরোলমেন্ট সেন্টার থেকে এই কাজ হচ্ছে তা জানতে পারবে না UIDAI। এর ফলেই সারা বিশ্বের যে কোন জায়গায় বসে এই কাজ করতে পারবেন হ্যাকাররা। এছাড়াও এই সফটওয়্যার প্যাচের মাধ্যমে আইরিস স্ক্যানারে সুরক্ষা কমিয়ে যে কোন ছবি দিয়ে সুরক্ষা লেয়ার অতিক্রম করা সম্ভব।

2010 সালে প্রথম বেসরকারীভাবে আধার নতিভুক্তকরনের কাজ শুরু করেছিল UIDAI। এই সময় Enrolment Client Multi-Platform (ECMP) নামে একটি সফটওয়্যারের মাধ্যমে এই কাজ শুরু হয়। যে কম্পিউটার থেকে আধার নতিভুক্তকরনের কাজ হয় সেই সব কম্পিউটারেই এই সফটওয়্যার ইনস্টল করা বাধ্যতামূলক। ক্লাউড সার্ভিস ব্যবহার না করে এইভাবে ইনস্টল করা সফটয়ওয়্যারের মাধ্যমে এই কাজ করার সিদ্ধান্তের ফলেই আধারের সুরক্ষা আজ এত বড় প্রশ্নের সামনে দাঁড়িয়েছে বলে মনে করেন সুরক্ষা বিশেষজ্ঞরা। এর ফলেই এই ধরনের প্যাচ ব্যবহার করে হ্যাকাররা সহজেই আধার নিয়ে ছিনিমিনি খেলছেন।

HuffPost জানিয়েছে কয়েক হাজারে WhatsApp গ্রুপ থেকে এই প্যাচ পাওয়া যাচ্ছে। মাত্র 2500 টাকায় কেনা যাচ্ছে এই প্যাচ। কম্পিউটারের অন্য আর পাঁচটা সফটওয়্যারের মতই সহজেই ইনস্টল কয়া যায় এই প্যাচ। এই প্যাচ ইনস্টল করার পরে যে কেউ এই অ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন। একউই সাথে GPS বন্ধ থাকার কারনে সারা পৃথিবীর যে কোন কোনায় বসে এই কাজ করা সম্ভব। যেহেতু ফিঙ্গারপ্রিন্ট ছাড়াই যে কোন বেসরকারী এজেন্ট এই অ্যাপ লগ ইন করতে পারেন তাই একজন এজেন্ট যত খুশি কম্পিউটার থেকে এই কাজ করা শুরু করেছেন।

রিপোর্টে জানানো হয়েছে এই প্যাচ ব্যবহার করে আধার এজেন্টবা 100 থেকে 500 টাকার বিনিময়ে নতুন আধার নতুভুক্তকরন করছেন। রিপোর্ট প্রকাশিত হওয়া পর্যন্ত এই প্যাচ কাজ করছে।

যদিও এই প্যাচ ব্যবহারব করে শুধু নতুন আধার নতিভুক্তিকরন করা যাচ্ছে। এই প্যাচ ব্যবহার করে ডাটাবেসে ভুয়ো এন্ট্রি ঢোকানো গেলেও আধার ডাটাবেস থেকে কোন তথ্য এই প্যাচের মাধ্যমে পাওয়া যাবে না। তাই নিজের আধার চুরি হয়ে যাওয়ার ভয় নেই নাগরিকদের।

কমেন্ট

প্রযুক্তির সাম্প্রতিক খবর আর রিভিউস জানতে লাইক করুন আমাদের Facebook পেজ অথবা ফলো করুন Twitter আর সাবস্ক্রাইব করুন YouTube.

পড়ুন: English தமிழ்
 
 

বিজ্ঞাপন